1. mohsinlectu@gmail.com : mahsin :
  2. zahiruddin554@gmail.com : Md. Zahir Uddin : Md. Zahir Uddin
মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ০৬:৩০ অপরাহ্ন
বিশেষ বিজ্ঞপ্তিঃ
 কপোতাক্ষ নিউজে আপনাকে স্বাগতম! (খালি থাকা সাপেক্ষে) দেশের সকল বিভাগ, জেলা, উপজেলা, বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস সহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগাযোগ: ০১৭২৭-৫৬৭৯৭৬

পটিয়ার কেলিশহরে মাদকের আখড়া, ধ্বংশ হচ্ছে যুবসমাজ

রিপোর্টার
  • আপডেটঃ বুধবার, ৮ জুন, ২০২২
  • ১৮৯ বার পড়া হয়েছে

এম এ আজাদ পটিয়া থেকেঃ– চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলা কেলিশহর ইউনিয়নে সেনপাড়া কালা বাবার আশ্রম এলাকায় গড়ে উঠেছে মাদকের আখড়ার সিন্ডিকেট । ফলে এলাকার উঠতি বয়সের ছাত্র ও তরুণ যুবসমাজ ধ্বংসের দিকে ধাবিত হচ্ছ। এসব মাদক ও ইয়াবা সিন্ডিকেটের প্রধান হোতা নেজাম, তার নেতৃত্বে গড়ে উঠেছে ৫০ সদস্য একটি বাংলা মদের সিন্ডিকেট। এর সদস্য কুতুব, সোহেল, রাজিব, মানিক, মহসিন, মুছা, রুবেল। এদের গডফাদার মোঃ কুতুব উদ্দিন ও মোঃ নেজাম এখনো পুলিশের ধরা ছোঁয়ার বাইরে রয়েছে। স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, নেজাম ও কুতুব চিহ্নিত মাধক কারবারি গত বছর ২২ জুলাই রাতে এলাকাবাসী ধাওয়া করলে ৪০০ লিটার বাংলা মদ দুইটি অস্ত্র মোটর সাইকেল ফেলে পালিয়ে য়ায় বলে সাবেক ইউপি মেম্বার আ.লীগ নেতা ইউনুস জানান। নেজাম কুতুব এর নেতৃত্বে গড়ে উঠেছে কেলিশহর ইউনিয়নে ৫০ সদস্য মাদক সিন্ডিকেট। দীর্ঘদিন পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে পটিয়ার কেলিশহর পূর্ব অঞ্চল পাহাড়ের একটি সিন্ডিকেট গঠন করে এ মাদকের রমরমা বাণিজ্য চালাচ্ছে । এমন কি তাদের এ কাজে ব্যবহার করছে ছোট শিশু থেকে শুরু করে বিভিন্ন বয়সের নারীদের। তাদের সাথে যুক্ত রয়েছে রোহিঙ্গারাও । মাদক কারবারিদের ট্রানজিট নিরাপদ পয়েন্ট হিসাবে ব্যবহার করছে পূর্ব অঞ্চল পাহাড় এলাকায় দোয়ালীশা মাজার সংলগ্ন সড়ক দিয়ে পঞ্চাশ পাহাড়, পুরাতন ফরেস্ট বিট অফিস, খিল্লাপাডা, বডুয়াপাড়া, সেনপাডা আশ্রম, মৌলবীবাজার, মাঝির পাডা সড়ক। মাঝে মধ্যে দারগাহাট ও ভট্টাচার্য হাটে জনসম্মুখে কোমড়ে অস্ত্র নিয়ে মহড়া দেন বলে এলাকার লোকজনের সাথে কথা বলে জানাগেছে। নেজাম- কুতুব বিএনপি ক্যাডার জসিম এর সহযোগী। জসিম প্রতিপক্ষ হাতে নিহত হলে তার অস্ত্র ভান্ডার নিয়ন্ত্রণে নেন নেজাম ও কুতুব। বর্তমান সরকার আমলে নেজাম ও কুতুব বীরদর্পে মাদক ও ইয়াবা ব্যাবসা জমজমাট চালাচ্ছে বলে এলাকার লোকজনের এবং স্থানীয় সরকার দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে। পটিয়া থানার পুলিশ হাতে এখনও ধরা ছোঁয়ার বাইরে রয়েছে দুর্ধর্ষ মাদক ও ইয়াবা সম্রাট নেজাম ও কুতুব। তাদের মাদক ব্যাবসা ও সন্রাসী সিন্ডিকেট মুর্তিমান মানুষের আতংক। তাদের ভয়ে মানুষ মুখ খুলার সাহস পাচ্ছে না বলে নাম প্রকাশের অনিচ্ছুক নারী- পুরুষ জানান। পটিয়ায় প্রতিদিন ঢুকছে হাজার হাজার চোলাই পাহাড়ি মদ তার পাশাপাশি কুটির ব্যবসা অর্থাৎ ইয়াবা। আর এ মরণ নেশা ইয়াবা ও মাদক পাচার প্রধান সড়ক হিসাবে পটিয়া- কেলিশহর রতনপুর সড়ক। তাদের সাথে বোয়ালখালীর করল ডেঙ্গা পাহাড়ি এলাকার মাদক কারবারিদের যোগাযোগ রয়েছে বলে সুত্রে জানা গেছে। ক্ষেত্র বিশেষ মাদক কারবারিরা রুট পরিবর্তন করে বোয়ালখালী হয়ে পটিয়ার ধলঘাট আবার পটিয়া থানা পুলিশের তাড়া খেয়ে বোয়ালখালীতে পার হয়ে যায়।পটিয়ায় দীর্ঘদিন যাবত রাঙ্গুনিয়ার কমলাছডি, রোয়াংছডি, করল ডেঙ্গার সন্ন্যাসী পাহাড়ের সুড়ঙ্গ পথে উপজাতি সন্ত্রাসীদের মাধ্যমে মাদক ইয়াবা আসে পটিয়ায়। নেজাম ও কুতুব এর সাথে রয়েছে উপজাতি পাহাড়ি সন্ত্রাসীদের সুসম্পর্ক। তাদের হাতে থাকে বড় লন্বা কিরিচ কোমড়ে থাকে অস্ত্র। পটিয়া থানা পুলিশ একের পর এক অভিযান চালালে পটিয়ার মাদক কারবারিরা পাহাড়ে ঢুকে যায় বলে পাহাড়ের বসবাসকারী সুত্রে জানা গেছে তবে তাদের নাম গোপন রাখার অনুরোধ করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© ২০-২২ কপোতাক্ষ নিউজ । এই ওয়েবসাইটের কোনো কন্টেন্ট অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

ডেভলপমেন্ট এন্ড মেইনটেন্যান্স: মোঃ জহির উদ্দীন