1. mohsinlectu@gmail.com : mahsin :
  2. zahiruddin554@gmail.com : Md. Zahir Uddin : Md. Zahir Uddin
সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:১৯ পূর্বাহ্ন
বিশেষ বিজ্ঞপ্তিঃ
কপোতাক্ষ নিউজে আপনাকে স্বাগতম! (খালি থাকা সাপেক্ষে) দেশের সকল বিভাগ, জেলা, উপজেলা, বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস সহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগাযোগ: ০১৭২৭-৫৬৭৯৭৬

সিংড়ায় বসতবাড়ির আঙ্গিনায় সবজি চাষে আগ্রহ বাড়ছে কৃষকদের

শুভ চন্দ্র, সিংড়া প্রতিনিধিঃ
  • আপডেটের সময়ঃ বৃহস্পতিবার, ১২ আগস্ট, ২০২১
  • ৫৩ বার পড়া হয়েছে

নাটোরের সিংড়ায় বসতবাড়িতে সবজি চাষে কৃষকদের মাঝে আগ্রহ বেড়েছে । বসত ভিটা ও আঙ্গিনায় গড়ে উঠছে পারিবারিক সবজি বাগান। এছাড়া উপজেলা কৃষি বিভাগের তত্বাবধানে ও গড়ে উঠেছে পারিবারিক সবজি বাগান। এতে করে পরিবারের চাহিদা পুরনের পাশাপাশি বাজারজাত করতে পারছে কৃষকরা। মিটছে পারিবারিক পুষ্টি চাহিদা।

সরেজমিনে দেখা যায়, উপজেলা কৃষি বিভাগের আওতায় আধুনিক প্রযুক্তিতে শুরু হয়েছে বসত বাড়িতে সবজি চাষ কার্যক্রম। চামারী ইউনিয়নের কালিকাপুর মডেলে করা হয়েছে ৫টি করে বেড। বেডে পর্যায়ক্রমে চাষ হচ্ছে লালশাক, পুইশাক,কলমি শাক সহ মাচায় লতানো সবজি লাউ ও করলা।

জানা যায়, আধুনিক প্রযুক্তি সম্প্রসারণের মাধ্যমে রাজশাহী বিভাগের কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় উপজেলার শেরকোলের হারোবাড়িয়া,হাতিয়ান্দহের গুপ্তি পাড়া,পারসাঐলের নজরপুর, চামারীর চককালিকাপুর সহ টি ৩৭ টি স্থানে এ কার্যক্রম শুরু করেছে সিংড়া উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর।বাড়ির প্রতি ইঞ্চি জমি ব্যবহার হচ্ছে এই কার্যক্রমে। এসব পারিবারিক কৃষিকে উদ্বুদ্ধ করতে বিনামুল্যে দেওয়া হয়েছে সবজি বীজ, সার ও বেড়া। এছাড়া কারিগরি সকল সহায়তা করছেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর। পারিবারিক সবজি ও পুষ্টি বাগান দেখভাল করার সুযোগ পাচ্ছেন কৃষকের পাশা পাশি কৃষাণীরাও।

উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মোঃ সেলিম রেজা জানান, কৃষি বিভাগ পারিবারিক সবজি চাষে কৃষকদের উৎসাহ প্রদানসহ সার্বিকভাবে সহযোগিতা করছে। বাড়ির উঠানে পরিত্যক্ত জায়গায় এই পারিবারিক কৃষিতে স্বল্প খরচে বেশি লাভের আশা রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© ২০২১ কপোতাক্ষ নিউজ । এই ওয়েবসাইটের কোনো কন্টেন্ট অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
ডেভলপমেন্ট এন্ড মেইনটেন্যান্স: মোঃ জহির উদ্দীন