1. mohsinlectu@gmail.com : mahsin :
  2. zahiruddin554@gmail.com : Md. Zahir Uddin : Md. Zahir Uddin
বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ১১:৩৮ পূর্বাহ্ন
বিশেষ বিজ্ঞপ্তিঃ
কপোতাক্ষ নিউজে আপনাকে স্বাগতম! (খালি থাকা সাপেক্ষে) দেশের সকল বিভাগ, জেলা, উপজেলা, বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস সহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগাযোগ: ০১৭২৭-৫৬৭৯৭৬

তৃণমূলে অধিকাংশ দুঃসময়ে নেতাদের বর্তমান সাংগঠনিক নেতৃত্বে চরিত্র বিপন্নঃ

পটিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ
  • আপডেটের সময়ঃ শুক্রবার, ২০ আগস্ট, ২০২১
  • ৬০ বার পড়া হয়েছে

চট্টগ্রামের পটিয়া পৌরসভার যুবলীগ সভাপতি সাবেক ছাএনেতা নুরুল আলম সিদ্দিকীর ফেইসবুক টাইমলাইন থেকে সংগৃহীত.।এক সময়ে আওয়ামীলীগের তৃণমূলে নেতা কর্মীদের কাছে দলের যারা শ্রদ্ধার পাত্র ছিলেন এরি মধ্যে অনেক সিনিয়র নেতা আজ নীতি নৈতিকতা বিসর্জন দিয়েছেন। তাদের সততা আদর্শ আজ বির্বজিত। তাদের মিথ্যাচার কর্মীদের প্রতি বিরুপ আচরণে আজ দুঃসময়ে জাতিরপিতার আদর্শীক কর্মীরা হতাশ। সে সকল নেতারা আজ তাদের ব্যাক্তি শ্বার্থ হাসিলের জন্য দুঃসময়ে পাশে থাকা কর্মীদের ভুলে গেলেন যাদের রাজপথে শ্লোগান ত্যাগ তিতিক্ষা কষ্টের বিনিময়ে নেতা হয়েছেন আজ সেসকল নেতারা অতীত ভুলে গেলেন। শুধুমাত্র ক্ষমতার স্বাদ লুফে নিতে।

যে সকল নেতারা মুখে ন্যায়নীতির কথা বলতেন আদর্শের কথা বলতেন সততার কথার বলতেন ঐক্যের কথা বলতেন সংগঠন গঠনতন্ত্র নিয়মঅনুযায়ী পরিচালিত করার নির্দেশনা দিতেন তারাই বর্তমান সময়ে সাংগঠনিক নিয়মনীতি ভেঙে একনায়কতন্ত্র এবং দলকে কুক্ষিগত করে রাখতে চাই। সংগঠনের কোনো সিন্ধান্ত নিতে গেলে গঠনতন্ত্র নিয়ম না মেনে উল্টোটা করেন।

একমাত্র কারণ তাদের অন্যায় দূর্নীতি বিরুদ্ধে যেনো কোনো নেতাকর্মী প্রতিবাদ করতে না পারে। মেধাশূন্য অর্তব অনুপ্রবেশকারীদের আজ দলের নেতৃত্বে বলেন জনপ্রতিনিধি বলেন সবখানে বসিয়ে দেওয়া হচ্ছে।
এরাই তাদের তরক্কিবাহক হয়ে কাজ করছেন।

দূর্রভাগ্য জাতিরপিতার সংগঠনটি আজ তাদের কারণে দূর্বল হয়ে পড়েছে। দলে কোনো শৃঙ্খলা নেই নেতার সাথে কর্মীর কোনো সৌহার্দপূর্ণ সম্পর্ক নেই দিন দিন নেতা সাথে কর্মীর দূরত্ব বেড়েই চলছে। মেধাবী কোনো কর্মী সৃষ্টি হচ্ছে না করোনাকালীন সময়ে কোনো কর্মীর খোঁজ খবর রাখা হয়েছে কিনা আমার জানা নেই। দল ক্ষমতায় আছে বিদায় কোনোরকম চলছে। বর্তমানে সংগঠনের যে হযবরল অবস্থা এবং উদ্ভট পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে তা কারো নজরে আসছে না।

যে সকল অনুপ্রবেশকারী দলে প্রবেশ করেছে তারা কোন পার্টি করে এসেছে তার অতীত ইতিহাস কি ছিলো পারিবারিক ব্যাকগ্রাউন্ড কি সে সকল নেতাদের কাছে মুখ্য বিষয় নই তাদের কাছে মুখ্য বিষয় সেই তার বিশ্বস্ত অনুসারি কিনা। সংগঠনের সাংগঠনিক অবস্থা তৃণমূলে বিভিন্ন ইউনিটে কোন পর্যায়ে বিরাজ করছেন তা তারা ভাবেন না তাদের ভাবার সময় ও নেই কারণ ক্ষমতাই তাদের চোখ অন্ধ করে ফেলছে। এই সকল নেতারা এতোটা মিথ্যাচার করেন যা একজন আদর্শীক নেতার কখনও ভাল চরিত্র হতে পারে না। তারা নিজেদের স্বার্থ রক্ষার জন্য সংগঠনকে ক্ষতিগ্রস্থ করতে দ্বিধাবোধ করেন না। নিজের স্বার্থই হচ্ছে তাদের কাছে বড় এবং বর্তমান সময়ে তাদের একগুঁয়েমি তৃণমূলে সাংগঠনিক কর্মকান্ড আমাদের ভাবিয়ে তুলে।

সময় এসেছে দল থেকে আদর্শীক নীতিবান সৎ পরিচ্ছন্ন নেতা খুঁজে বের করার এদের নেতৃত্বে প্রতিটি ইউনিটে জাতিরপিতার আদর্শের সংগঠনকে শক্তিশালী গড়ে তুলবার জন্য শপত গ্রহন করার সময়ের দাবীতে পরিণত হয়েছে।
জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© ২০২১ কপোতাক্ষ নিউজ । এই ওয়েবসাইটের কোনো কন্টেন্ট অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
ডেভলপমেন্ট এন্ড মেইনটেন্যান্স: মোঃ জহির উদ্দীন