1. mohsinlectu@gmail.com : mahsin :
  2. zahiruddin554@gmail.com : Md. Zahir Uddin : Md. Zahir Uddin
সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ০৪:২৩ অপরাহ্ন
বিশেষ বিজ্ঞপ্তিঃ

সারাদেশ ব্যাপী করোনার টিকাদান কর্মসূচী চলছে ,সকলকে টিকা গ্রহণ করার জন্য অনুরোধ করা হল।কপোতাক্ষ নিউজে আপনাকে স্বাগতম! (খালি থাকা সাপেক্ষে) দেশের সকল বিভাগ, জেলা, উপজেলা, বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস সহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগাযোগ: ০১৭২৭-৫৬৭৯৭৬

ভারত সরকারের ৪০টি অ্যাম্বুলেন্স উপহার পৌঁছালো বাংলাদেশে

সুমন হোসেন/ যশোর জেলা প্রতিনিধি
  • আপডেটঃ বুধবার, ২৫ আগস্ট, ২০২১
  • ৮৮ বার পড়া হয়েছে

ভারত সরকারের উপহারের ৪০টি লাইফ সাপোর্ট অ্যাম্বুলেন্স পেট্রাপোল বন্দরে পৌঁছেছে। বেনাপোল স্থল-শুল্ক চেকপোস্টে ছাড়পত্র পাওয়ার পর অ্যাম্বুলেন্সগু‌লো বৃহস্পতিবার (২৫ আগস্ট) ঢাকার উদ্দেশে রওনা করবে। বুধবার (২৫ আগস্ট) ঢাকার ভারতীয় হাইকামিশন এ তথ্য জা‌নি‌য়ে‌ছে। হাইক‌মিশন জানায়, চল‌তি বছ‌রের মা‌র্চে ভার‌তের প্রধানমন্ত্রী ন‌রেন্দ্র মো‌দি বাংলাদেশ সফরের সময় কোভিড-১৯ মহামারি মোকাবিলার যৌথ প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ সরকারকে ১০৯টি লাইফ সাপোর্ট অ্যাম্বুলেন্স উপহার দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন। সেই প্রতিশ্রুতি পূরণে ৪০টি অ্যাম্বুলেন্স এখন পেট্রাপোলে এসেছে। বেনাপোল স্থল-শুল্ক চেকপোস্টে ছাড়পত্র পাওয়ার পর এগুলো বৃহস্পতিবার ঢাকার উদ্দেশে রওনা হবে। আরও ৩৮টি অ্যাম্বুলেন্স সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে ঢাকায় পৌঁছাবে বলে আশা করা যাচ্ছে। এই উপহার বাংলাদেশের ভ্রাতৃত্বপূর্ণ জনগণের সহায়তার জন্য ভারতের অব্যাহত এবং দীর্ঘমেয়াদি অঙ্গীকারের প্রতিফলন করে বলে উল্লেখ করে হাইকমিশন। এর আগে গত ১৭ আগস্ট রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় ভারতের উপহারের ৩১টি লাইফ সাপোর্ট অ্যাম্বুলেন্স হস্তান্তর করে হাইকিমশন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের কাছে এসব উপহার হস্তান্তর করেন ঢাকায় নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী।

বাংলাদেশ এ নিয়ে মোট ৭২ টি অ্যাম্বুলেন্স ভারতে উপহার পেলো। বাংলাদেশকে মোট ১০৯ টি অ্যম্বুলেন্স উপহার দিবেন বলে পড়শি দেশ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© ২০২১ কপোতাক্ষ নিউজ । এই ওয়েবসাইটের কোনো কন্টেন্ট অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
ডেভলপমেন্ট এন্ড মেইনটেন্যান্স: মোঃ জহির উদ্দীন