1. mohsinlectu@gmail.com : mahsin :
  2. zahiruddin554@gmail.com : Md. Zahir Uddin : Md. Zahir Uddin
সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ১১:৫৮ অপরাহ্ন
বিশেষ বিজ্ঞপ্তিঃ
 কপোতাক্ষ  নিউজে আপনাকে স্বাগতম! (খালি থাকা সাপেক্ষে) দেশের সকল বিভাগ, জেলা, উপজেলা, বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস সহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগাযোগ: ০১৭২৭-৫৬৭৯৭৬

গাজরের গলায় হীরার আংটি

রিপোর্টার
  • আপডেটঃ বৃহস্পতিবার, ৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ২২৬ বার পড়া হয়েছে
জি.এম মুছাঃ কথাটা শুনে তোমাদের বেশ অবাক লাগছে তাই না বন্ধুরা, অবাক লাগারই কথা, গাজরের গলায় হীরার আংটি, এ আবার কেমন কথা, বিশ্বাস হচ্ছে না তাই না, ছোট্ট বন্ধুরা।  যদিও কথাটা অবিশ্বাস্য তবুও ঘটনা ছিল কিন্তু সত্য এক ঘটনা।৮৪ বছর বয়স্কা কানাডিয়ান এক নারী তার বিয়েতে উপহার হিসেবে পাওয়া একটি মূল্যবান হীরের আংটি যা ছিল ঐ নারীর খুব পছন্দের আংটি, তাছাড়া বিয়ের আংটি বলে কথা, যা সব নারীর কাছে সবসময় সমান প্রিয় ও পছন্দ এবং আকর্ষণীয় হয়ে থাকে। আর ঐ প্রিয় ও আকর্ষণীয় বস্তুটি যদি কোন কারনে হারিয়ে যায় তাহলে তো কষ্টের আর সীমা থাকে না।
আবার যদি সেটি এক যুগেরও বেশী সময় পর যদি রহস্য জনকভাবে বা অন্য কোন উপায়ে কাকতালীয় ভাবে ফিরে পাওয়া যায়। তখন কিন্তু আবার আনন্দের আর কোন সীমা থাকে না। ইং ২০০৪ সালে কথা ঠিক তের বছর আগে কানাডিয়ান ঐ নারী মেরী গ্রামস্ তাদের বাগানে ঘুরে বেড়ানোর সময় তার প্রিয় হিরের আংটিটি হারিয়ে ফেলেন, তারপর তিনি দীর্ঘদিন ধরে একাকা ঐ বাগানে নিজের হারিয়ে যাওয়া আংটিটি বহু খোঁজাখুঁজি করে আসছিলেন। একদিকে নিজের বিয়ের উপহার পাওয়া প্রিয় আংটি হারানো, অন্য দিকে খুঁজে না পাওয়ার দুঃখ বেদনা আর মনের কষ্ট তাকে প্রায় তাড়া করে বেড়াতো।
        হঠাৎ একদিন তার পুত্রবধূ তাদের বাগান থেকে কিছু গাজর তুলে এনে পানিতে ধোয়ার সময় দেখতে পেলো গাজরের গলায় হীরের একটি আংটি। প্রথমে কিছুটা অবাব হলো, তারপর ঘটনাটা তার স্বামীকে বলল, তখন সে বুঝতে পারলো আংটিটি তার মায়ের হারিয়ে যাওয়া সেই হীরের আংটি। সংগে সংগে কথাটা মা মেরী গ্রামসকে জানালেন। কথাটি জানতে পেরে তার হারানো আংটিটি দীর্ঘদিন পরে ফিরে পেয়ে তিনি আংটি হারানো কষ্ট দুঃখ বেদনা যেন একেবারেই ভুলে গেলেন মেরী গ্রামস্।
        অনেক দিন পরে গাজরের কল্যাণে হারোনা আংটিটি খুঁজে পেয়ে আনন্দে উচ্ছ্বাসিত পুরো পরিবার। তবে মজার ব্যাপার হলো হারিয়ে যাওয়া আলোচিত ঐ হীরের আংটি খুুঁজে পাওয়ার মাধ্যমটি কিন্তু গাজর আর এভাবে গাজর গলায় করে হীরের আংটি বহন করার জন্য সবাই আমরা ঐ গাজরটিকে ধন্যবাদ দিতেই পারি, নাকি বলো বন্ধুরা?
উপদেশঃ সৎ পথের উপার্জন হয় না বৃথা

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© ২০-২২ কপোতাক্ষ নিউজ । এই ওয়েবসাইটের কোনো কন্টেন্ট অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

ডেভলপমেন্ট এন্ড মেইনটেন্যান্স: মোঃ জহির উদ্দীন