1. mohsinlectu@gmail.com : mahsin :
  2. zahiruddin554@gmail.com : Md. Zahir Uddin : Md. Zahir Uddin
সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:৫৯ পূর্বাহ্ন
বিশেষ বিজ্ঞপ্তিঃ

কপোতাক্ষ নিউজে আপনাকে স্বাগতম! (খালি থাকা সাপেক্ষে) দেশের সকল বিভাগ, জেলা, উপজেলা, বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস সহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগাযোগ: ০১৭২৭-৫৬৭৯৭৬

আলোর মুখ দেখতে শুরু করেছে মোহাম্মদ পুর টু ছুটিপুর মেইন রোড

নিউজ ডেস্কঃ
  • আপডেটঃ মঙ্গলবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১০০ বার পড়া হয়েছে

নিউজ ডেস্ক: ভোগান্তির শেষ হতে চলেছে মোহাম্মদ পুর থেকে ছুটিপুরে যাবার প্রধান সড়কে। দীর্ঘ দিন কাজ বন্ধ থাকার পর আবার নতুক করে কাজ শুরু হয়েছে রাস্তায়। বৃষ্টির পানিতে রাস্তায় চলাচল খুবই বিপদজনক হয়ে পড়েছিলো।নিয়মিতই ঘটছিলো দূর্ঘটনা। ব্যস্ততম রাস্তা হওয়ার দূভোগের শেষ ছিলো না। অনেক দিনের প্রতিক্ষার পরে দৃশ্যমান হতে শুরু করেছে রাস্তা। ছুটিপুর জামতলা মোড় থেকে গংঙ্গানন্দপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় পযন্ত রাস্তায় ঢালায়ের কাজ প্রায় শেষের দিকে।ইতিমধ্যে মোহাম্মদ পুর মোড় থেকে ব্রিজের মুখ আমতলা মোড় পযন্ত রাস্তায় পাশ দিয়ে মাটি খুড়া শুরু হয়েছে। ছুটিপুর বাজারের কাজ শেষ হলেই মোহাম্মদ পুর মোড়ের কাজ শুরু হবে বলে ধারনা করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে ব্রিজের দুইপাশের কিছু কাজ না হওয়ার সম্ভবনাও সৃষ্টি হয়েছে বলে ধারনা করছে স্থানীয় জনগন। সকলের ধারনা পুরাতন ব্রিজ ভেঙ্গে নতুন ব্রিজ তৈরি হবার সম্ভবনার কথা শোনা যাওয়ায় কাজ কিছুটা না হওয়ার সম্ভবনা আছে। তারপরও রাস্তায় ঢালায়ের কাজ শুরু হওয়ায় স্বস্তি প্রকাশ করেছে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা। জনগনের মাঝেও বইতে শুরু করেছে স্বস্তির নিশ্বাস। রাস্তায় চলাচল করা যানবহনের চালক থেকে শুরু করে স্থানীয় ব্যবসায়ী তাদের ভাগ্যের পরিবর্তনের নতুন দোয়ার উন্মোচন হবে আশায় বুক বাধা শুরু করেছে।সব কিছু পর্যালোচনা করে এ কথা বলায় যায় ডিজিটাল বাংলাদেশের রাস্তা ঘাটের যে উন্নয়ন তার দৃশ্যমান বহিঃপ্রকাশ দেখতে পাবে ছুটিপুর থেকে মোহাম্মদ পুরের প্রধান সড়কে চলাচল কারি জনগন। রাস্তার কাজের বাকি অগ্রগতি পরিবতী নিউজে পাওয়া যাবে

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© ২০২১ কপোতাক্ষ নিউজ । এই ওয়েবসাইটের কোনো কন্টেন্ট অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
ডেভলপমেন্ট এন্ড মেইনটেন্যান্স: মোঃ জহির উদ্দীন