1. mohsinlectu@gmail.com : mahsin :
  2. zahiruddin554@gmail.com : Md. Zahir Uddin : Md. Zahir Uddin
মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ০৬:৫৮ পূর্বাহ্ন
বিশেষ বিজ্ঞপ্তিঃ

কপোতাক্ষ নিউজে আপনাকে স্বাগতম! (খালি থাকা সাপেক্ষে) দেশের সকল বিভাগ, জেলা, উপজেলা, বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস সহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগাযোগ: ০১৭২৭-৫৬৭৯৭৬

সিরাজগঞ্জে বাগ বাটিতে শিক্ষক পরিবারকে হত্যার হুমকি!

রিপোর্টার
  • আপডেটঃ সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১০৩ বার পড়া হয়েছে

মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃসিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার বাগবাটি ইউনিয়নের চক ফুলকোচা গ্রামে জমিসংক্রান্ত বিরোধের জেরে ঘোরাচরা উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসর প্রাপ্ত বিএসসি শিক্ষক মো. রহিচ উদ্দিন এর পরিবারকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ ওঠেছে।

এ ঘটনায় সিরাজগঞ্জ সদর থানায় সাধারণ ডায়েরী হয়েছে বলে ওই ভুক্তভোগী পরিবার সূত্রে জানা গেছে।এদিকে ভুক্তভোগী পরিবার আইনের আশ্র‍য় নেয়ায় আরও বেপরোয়া হয়ে আজ সোমবার সকাল ৬ টায় তাদের পৈতৃক সম্পত্তিতে বিভিন্ন প্রজাতির গাছ জোড়পূর্বক ভাবে কর্তন করেছে এবং ঘর তোলারও অভিযোগ রয়েছে প্রতিপক্ষ আব্দুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে। এতে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে বলে অভিযোগ করেছে ভুক্তভোগী শিক্ষক পরিবার।

স্থানীয়রা জানায়, প্রায় ৮ মাস পূর্বে ওই গ্রামের মৃত হারান আলীর ছেলে আব্দুর রাজ্জাকের অনুরোধে পাকা রাস্তার পাশে একটি মুদি দোকান তোলার অনুমতি দেয় শিক্ষক পরিবার। পরে দোকান নির্মাণের পর থেকেই প্রত্যেক দিন ও সন্ধারাতে টেলিভিশন চালিয়ে উচ্চস্বরে গান বাজিয়ে নিকটস্থ মহিলা মাদ্রাসার পড়াশোনায় বিগ্ন সৃষ্টি করে আব্দুর রাজ্জাক।
এতে স্থানীয়রা বারবার নিষেধ করলেও সেটি তোয়াক্কা করেননি তিনি। এ অবস্থায় দোকান সরিয়ে নিতে বলাতেই শিক্ষক পরিবারের উপর বিভিন্ন ভাবে হত্যার হুমকি শুরু করেছেন বলে জানা যায়।
শিক্ষকের ছেলে মো. রাশিদুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, আমার বাবার পৈতৃক সম্পত্তিতে দোকান তুলে আব্দুর রাজ্জাক পূর্ব পরিকল্পিতভাবে আমাদের বিভিন্ন ভাবে ক্ষতি করছে। দোকান সরে নিতে বলায় আমাদের সবাইকে হত্যার হুমকি দিয়েছে। আমার চাচা আব্দুল হামিদ সেখ এ ব্যাপার থানায় অভিযোগ দিয়েছে।
অভিযুক্ত আব্দুর রাজ্জাককে মোবাইলে কল করা হলে সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে ফোনটি কেটে দেন।
এদিকে সিরাজগঞ্জ সদর থানার এএসআই তাপস কুমার মন্ডল বলেন, শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) ৯৯৯ এ কল পাওয়ার পর ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। উভয় পক্ষকে থানায় এসে মীমাংসার কথা বলা হয়েছিলো। কিন্তু বিবাদীপক্ষ থানায় আসেনি।
এ প্রসঙ্গে বাগবাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বিষয়টি আমি অবগত হয়েছি। স্থানীয়দের সাথে কথা বলে খুব দ্রুত নিষ্পত্তি করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© ২০২১ কপোতাক্ষ নিউজ । এই ওয়েবসাইটের কোনো কন্টেন্ট অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
ডেভলপমেন্ট এন্ড মেইনটেন্যান্স: মোঃ জহির উদ্দীন