1. mohsinlectu@gmail.com : mahsin :
  2. zahiruddin554@gmail.com : Md. Zahir Uddin : Md. Zahir Uddin
মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ০৭:১৯ পূর্বাহ্ন
বিশেষ বিজ্ঞপ্তিঃ

কপোতাক্ষ নিউজে আপনাকে স্বাগতম! (খালি থাকা সাপেক্ষে) দেশের সকল বিভাগ, জেলা, উপজেলা, বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস সহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগাযোগ: ০১৭২৭-৫৬৭৯৭৬

কৃষিজমি নষ্ট করে বালু ভরাট চলমান উন্নয়নকে প্রশ্নবিদ্ধ করবে বাপা সাধারণ সম্পাদক

রিপোর্টার
  • আপডেটঃ বৃহস্পতিবার, ২ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৭০ বার পড়া হয়েছে

মোঃ এরশাদ হোসেন রনি, মোংলাঃ তিন ফসলি কৃষিজমি নষ্ট করে বালু ভরাটের পরিকল্পনা দেশের চলমান উন্নয়নকে প্রশ্নবিদ্ধ করবে। কৃষিজমি, নদ-নদী, বনভূমি-জলাশয় ও পাহাড় এবং জীবৈচিত্র নষ্ট করে উন্নয়ন কর্মকান্ড আবশ্যক ও টেকসই কোনটাই না। জনবান্ধব ও পরিবেশবান্ধব টেকসই উন্নয়ন পরিকল্পনা বাস্তবায়নে সরকারকে আন্তরিক হতে হবে। ২ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার বিকেলে বাণীশান্তা বাজারে মোংলা বন্দর কর্তৃক কৃষিজমি নষ্ট করে বালু ভরাটের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) ও বাণীশান্তা ইউনিয়ন কৃষিজমি রক্ষা সংগ্রাম কমিটির আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বাপা কেন্দ্রিয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক শরীফ জামিল একথা বলেন।

বৃহস্পতিবার(২ ডিসেম্বর) বিকেল তিনটায় অনুষ্ঠিত জনসভায় সভাপতিত্ব করেন বাপা মোংলা ও সুন্দরবন অঞ্চলের আহবায়ক মো. নূর আলম শেখ। জনসভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাণীশান্তা ইউপি চেয়ারম্যান সুদেব রায়, যুব বাপা’র কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য দেওয়ান নূরতাজ আলম, আওয়ামীলীগ নেতা পরিমল রপ্তান, বাণীশান্তা ইউনিয়ন কৃষিজমি রক্ষা সংগ্রাম কমিটির নেতা সঞ্জীব দাস, কৃষক নেতা এ্যাড. রুহুল আমীন, কিশোর রায়, ইউপি সদস্য ফিরোজ আলী খান, সত্যজিৎ গাইন, বিশ্বজিৎ মন্ডল প্রমূখ। জনসভায় বাণীশান্তা ইউনিয়ন কৃষিজমি রক্ষা সংগ্রাম কমিটির নেতৃবৃন্দ বলেন তিন ফসলি কৃষিজমি উপর নির্ভর করে আমাদের জীবন-জীবিকা চলে। তাই জীবন দেবো তারপরেও কৃষিজমিতে বালু ফেলতে দেবো না। জনসভায় বাণীশান্তা ইউনিয়নের সহস্রাধিক কৃষক উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© ২০২১ কপোতাক্ষ নিউজ । এই ওয়েবসাইটের কোনো কন্টেন্ট অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
ডেভলপমেন্ট এন্ড মেইনটেন্যান্স: মোঃ জহির উদ্দীন